ওয়ার্ডপ্রেস পিএইচপি এসকিউএল জাভাস্ক্রিপ্ট জেকুয়েরি এইচটিএমএল
ফোরাম
×

ওয়ার্ডপ্রেস বেসিক

হোম-HOME ইন্সটলেশন-Installation ড্যাসবোর্ড-Dashboard

ওয়ার্ডপ্রেস সেটিং

General সেটিং Writing সেটিং Reading সেটিং ডিসকাশন-Discussion Media সেটিং পারমালিঙ্ক-Permalink প্লাগ-ইন Plugin

ওয়ার্ডপ্রেস ক্যাটাগরি

Add ক্যাটাগরি edit ক্যাটাগরি Delete ক্যাটাগরি

ওয়ার্ডপ্রেস পোস্ট

Add পোস্ট Edit পোস্ট Delete পোস্ট Preview পোস্ট Publish পোস্ট

ওয়ার্ডপ্রেস মিডিয়া

মিডিয়া লাইব্রেরি Add মিডিয়া Insert মিডিয়া Edit মিডিয়া

ওয়ার্ডপ্রেস পেইজ

Add পেইজ Publish পেইজ Edit পেইজ Delete পেইজ

ওয়ার্ডপ্রেস ট্যাগ

Add ট্যাগ Edit ট্যাগ Delete ট্যাগ

ওয়ার্ডপ্রেস লিঙ্ক

Add লিঙ্ক Edit লিঙ্ক Delete লিঙ্ক

ওয়ার্ডপ্রেস কমেন্ট

Add কমেন্ট Edit কমেন্ট Moderate কমেন্ট

ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগ-ইন

View প্লাগ-ইন Install প্লাগ-ইন Customize প্লাগ-ইন

ওয়ার্ডপ্রেস Users

User Role Add User Edit User Delete User ব্যক্তিগত প্রোফাইল

ওয়ার্ডপ্রেস Appearance

থিম ম্যানেজমেন্ট Customize থিম Widget ম্যানেজমেন্ট ব্যাকগ্রাউন্ড

ওয়ার্ডপ্রেস Advance

হোস্ট ট্রান্সফার ভার্সন আপডেট স্পাম Protection ব্যাকআপ ও পূনরুদ্ধার Optimization রিসেট পাসওয়ার্ড



 

OPTIMIZATION


এই অধ্যায়ে আমরা ওয়ার্ডপ্রেস সাইট কীভাবে optimize করতে হয়, সে সম্পর্কে জানব। যেমনঃ


  1. হাই কোয়ালিটি ও অর্থবোধক কন্টেন্ট নিশ্চিত করা।

  2. ইমেজের সুঠিক নাম দেওয়া।

  3. কীওয়ার্ড সম্বলিত পারমালিঙ্ক ব্যবহার করা।

  4. ওয়ার্ডপ্রেস উপযুক্ত থিম ব্যবহার করা।

  5. সাইট ম্যাপ XML ফরম্যাটে হওয়া উচিত।

  6. Social নেটওয়ার্কগুলোকে পোস্টে সংযুক্ত করা।

  7. Trash ডিলেট করা।

  8. সবসময় সাইট পর্যবেক্ষন করা।

  9. সবসময় প্লাগ-ইন গুলো পর্যবেক্ষন করা।

  10. CSS এবং JAVASCRIPT ফাইলগুলোকে সঠিক স্থানে রাখুন।

হাই কোয়ালিটি ও অর্থবোধক কন্টেন্ট নিশ্চিত করা।

আপনি একটি পেইজ তৈরি করার পর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন বিষয় হলো তার কন্টেন্ট। অবশ্যই কীওয়ার্ড সম্বলিত কন্টেন্ট থাকতে হবে যেটা ব্যবহারকারীর বোধগম্য হবে।


ইমেজের সঠিক নাম দেওয়া।

প্রত্যেকটী ইমেজের জন্য ইউনিক নাম দিতে হবে। সেটা যেন ইমেজের সাথে সাদৃশ্য হয়। প্রত্যেকটি ইমেজের জন্য নির্দিষ্ট নাম সিলেক্ট করুন এবং ইমেজের জন্য alt ও title ট্যাগ ব্যবহার করতে ভুলবেন না।


কীওয়ার্ড সম্বলিত পারমালিঙ্ক ব্যবহার করা।

বোধগম্য পারমালিঙ্ক ব্যবহার করুন।
উদাহরণঃ
http://www.sattacademy.org/page-id?5631456325 এর পরিবর্তে http://www.sattacademy.org/wordpress/index.php ব্যবহার করুন।


ওয়ার্ডপ্রেস উপযুক্ত থিম ব্যবহার করা।

আপনার ওয়াবসাইটের জন্য ওয়ার্ডপ্রেস উপযুক্ত এবং ফাস্ট থিম ব্যবহার করুন।


সাইট ম্যাপ XML ফরম্যাটে হওয়া উচিত।

গুগলের অনেক tools আছে যেগুলো খুবই উপকারী। যেমনঃ Website Optimizer, Webmaster Central, and Google XML sitemaps এগুলো ব্যবহার খুবই সহজ।


Social নেটওয়ার্কগুলোকে পোস্টে সংযুক্ত করা।

বর্তমানে Social মিডিয়াগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ন। তাই এগুলোকে ব্লগ পোস্টে, পেইজে যুক্ত করুন। অন্যান্য পোস্ট ও পেইজকে প্রোমোট করুন।


Trash ডিলেট করা।

সবসময় ওয়েবসাইটের ট্র্যাস ডিলেট করুন। এতে আপনার ওয়েবসাইটের স্পিড বৃদ্ধি পাবে।


সবসময় সাইট পর্যবেক্ষন করা।

পেইজের সাইজ খুবই গুরুত্বপূর্ন। যত বেশি ইমেজ, ভিডিও ইত্যাদি আপনার পেইজে থাকবে, ততই ওয়েবসাইট লোড হতে সময় বেশি নিবে। Yslowi এই প্লাগ-ইন ব্যবহার করলে পেইজ স্পিড বৃদ্ধি পাবে।


সবসময় প্লাগ-ইন গুলো পর্যবেক্ষন করা।

পেইজ স্পীড কম হওয়ার আরেকটি কারন সাইটে অতিরিক্ত প্লাগ-ইন থাকা। তাই সবসময় প্লাগ-ইন কাজ করতেছে কিনা তা পর্যবেক্ষন করুন।


CSS এবং JAVASCRIPT ফাইলগুলোকে সঠিক স্থানে রাখুন।

সবসময় CSS ফাইলগুলোকে পেইজের উপরে রাখুন এবং JAVASCRIPT ফাইলগুলোকে পেইজের নিচে রাখুন। যাতে আগে CSS ফাইলগুলো লোড হয় এবং পরে JAVASCRIPT ফাইল।