বাংলা সাহিত্যের প্রথম ইতিহাস গ্রন্থ কে রচনা করেন?

সুকুমার সেন

দীনেশচন্দ্র সেন

মুহম্মদ শহীদুল্লাহ

অসিতকুমার বন্দ্যোপাধ্যায়

Description (বিবরণ) : বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও গবেষক দীনেশচন্দ্র সেন (১৮৬৬-১৯৩৯ খ্রি) ১৮৯৬ সালে 'বঙ্গভাষা ও সাহিত্য' নামে প্রাচীন ও মধ্যযুগের বাংলা সাহিত্যের সুশৃঙ্খল ও তথ্যসমৃদ্ধ ধারাবাহিক ইতিমূলক এ গ্রন্থটি রচনা করেন। আর এটিই বাংলা সাহিত্যের প্রথম যথার্থ ইতিহাস গ্রন্থ হিসেবে স্বীকৃতি। অন্যদিকে ড. সুকুমার সেন , ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ এবং অসিতকুমার বন্দ্যোপাধ্যায় রচিত ইতিহাস বিষয়ক উল্লেখ্যযোগ্য গ্রন্থগুলো হলো যথাক্রমে 'বাঙ্গালা সাহিত্যের ইতিহাস' (১৯৪০) , 'বাংলা ভাষার ইতিবৃত্ত' (১৯৫৯) এবং 'বাংলা সাহিত্যের ইতিবৃত্ত ' (১ম খন্ড) (১৯৫৯)।


Related Question

'বঙ্গদর্শন' পত্রিকার প্রথম সম্পাদক কে ছিলেন?

প্যারীচাঁদ মিত্র

বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

প্রমথ চৌধুরী

Description (বিবরণ) : ১৮৭২ সালে বাংলা সাহিত্যের স্থপতি বঙ্কিমচন্দ্র চট্রোপাধ্যায় (১৮৩৮-১৮৯৪) খ্রি প্রথশম 'বঙ্গদর্শন ' পত্রিকাটি প্রকাশ করেন এবং তিনিই এ পত্রিকার প্রথম সম্পাদক।

কোন কবিতা রচনার জন্য কাজী নজরুল ইসলামের ' অগ্নিবীণা' কাব্য নিষিদ্ধ হয়?

বিদ্রোহী

আনন্দময়ীর আগমনে

প্রলয়োল্লাস

রক্তাম্বরধারিনী মা

Description (বিবরণ) : বিদ্রোহী কবি নজরুল ইসলামের বিখ্যাত কাব্যগ্রন্থ 'অগ্নিবীণাতে প্রলয়োল্লাস, বিদ্রোহী এবং রক্তাম্বরধারিণী মা কবিতা তিনটি অন্তর্ভুক্ত। ধূমকেতুর ২৬ সেপ্টেম্বর ১৯২২ সংখ্যায় নজরুলের রাজনৈতিক কবিতা 'আনন্দময়ীর আগমনে' প্রকাশ হলে ৮ নভেম্বর পত্রিকার ঐ সংখ্যা নিষিদ্ধ করা হয় এবং কবিতা রচনার জন্য ব্রিটিশ সরকার ঐ সংখ্যা নিষিদ্ধ করা হয় এবং কবিতা রচনার জন্য ব্রিটিশ সরকার কর্তৃক ১ বছর কারাদণ্ড দণ্ডিত হন। উল্লেখ্য, অনেকে লিখে থাকেন 'অগ্নিবীণা' ব্রিটিশ সরকার কর্তৃক বাজেয়াপ্ত হয়েছিল। এ তথ্য সত্য নয়। গ্রন্থটি কোনোদিন নিষিদ্ধ হয়নি।

'মৃন্ময়ী' রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কোন ছোটগল্পের নায়িকা?

সমাপ্তি

দেনা-পাওনা

পোস্ট-মাস্টার

মধ্যবর্তিনী

Description (বিবরণ) : রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের 'সমাপ্তি' ছোটগল্পের নায়িকা 'মৃন্ময়ী' এবং নায়ক' অপূর্বকৃষ্ণ ' । অন্যদিকে তার 'দেনাপাওনা' ছোটগল্পের নায়িকা 'নিরু' পোস্টমাস্টার' গল্পের বালিকা চরিত্র 'রতন' এবং 'মধ্যবর্তিনী ' গল্পের নায়িকা 'হরসুন্দরী' ও 'শৈলবালা' এবং নায়ক 'নিবারণ'।

' উত্তম পুরুষ' উপন্যাসের রচয়িতা কে?

শওকত ওসমান

জহির রায়হান

শহীদুল্লাহ কায়সার

রশীদ করিম

Description (বিবরণ) : রশীদ করিমের একটি অন্যতম উপন্যাস হলো 'উত্তম পুরুষ' । ১৯৬১ সালে প্রকাশিত এ উপন্যাসটি নগরজীবনের বৈশিষ্ট্য অবলম্বনে রচিত। তার অন্যান্য উল্লেখ্যযোগ্য উপন্যাসের মধ্যে রয়েছে। প্রসন্ন পাষাণ (১৯৬৩) , আমার যত গ্লানি (১৯৭৩) , মায়ের কাছে যাচ্ছি- ইত্যাদি। শওকত ওসমান রচিত উল্লেখযোগ্য উপন্যাস - জননী (১৯৬৮) ,ক্রীতদাসের হাসি (১৯৬২) , জাহান্নাম হইতে বিদায় (১৯৭১) ইত্যাদি। জহির রায়হান রচিত উল্লেখযোগ্য উপন্যাস- হাজার বছর ধরে (১৯৬৪), আরেক ফাল্গুন (১৯৬৮) , বরফ গলা নদী (১৯৬৯) ইত্যাদি। শহীদুল্লাহ কায়সার রচিত উল্লেখযোগ্য উপন্যাস - সারেং বউ (১৯৬২) ও সংশপ্তক (১৯৬৫)।

' কাশবনের কন্যা' কোন জাতীয় রচনা?

নাটক

উপন্যাস

কাব্য

ছোটগল্প

Description (বিবরণ) : ঔপন্যাসিক শামসুদ্দীন আবুল কালাম রচিত অন্যতম উপন্যাস 'কাশবনের কন্যা' । এটি জেলে সম্প্রদায়ের জীবনভিত্তিক উপন্যাস। ১৯৫৪ সালে প্রকাশিত (গ্রন্থাকারে) উপন্যাসটিতে বরিশাল অঞ্চলের মুখের ভাষা ও জীবনবোধ অত্যন্ত সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

কোনটি মুহম্মদ এনামুল হকের রচনা?

ভাষার ইতিবৃত্ত

আধুনিক ভাষাতত্ত্ব

মনীষা মঞ্জুষা

বাংলাদেশের আঞ্চলিক ভাষার অভিধান

Description (বিবরণ) : 'মনীষা মঞ্জুষা' বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও গবেষক মুহম্মদ এনামুল হক (১৯০৬-১৯৮২)খ্রি রচিত এক সংকলন গ্রন্থ। দু খণ্ডের এ গ্রন্থের প্রথম খণ্ড ১৯৭৫ সালে এবং দ্বিতীয় খন্ড ১৯৭৬ সালে প্রকাশিত হয়। 'আধুনিক ভাষাতত্ত্ব 'গবেষণা গ্রন্থটি রচনা করেন আবুল কালাম মনজুর মোরশেদ । 'বাংলাদেশের আঞ্চলিক ভাষার অভিধান' গ্রন্থটি সম্পাদনা করেন ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ। উল্লেখ্য ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ রচিত আরেকটি ভাষাতত্ত্ব হলো 'বাংলা ভাষার ইতিবৃ্ত্ত।